রাত ১:৩৮ | সোমবার | ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের কামারগ্রামের আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজে দুই দিনব্যাপী বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়েছে।

রবিবার সকালে জাতীয় সঙ্গীতের সুরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পতাকা উত্তোলন, শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে এবং  মশাল জ্বালিয়ে এ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়। পরে  প্যারেড পরিবেশনের মাধ্যমে অতিথিদের সালাম নিবেদন করা হয়।

ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন  ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মৃধা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজের সভাপতি, অনলাইন নিউজপোর্টাল ‘ঢাকাটাইমস’ ও সাপ্তাহিক ‘এই সময়’ সম্পাদক এবং কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সমাজসেবক আরিফুর রহমান দোলন।

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ যেন আবার ক্ষমতায় আসতে পারে, সে লক্ষ্যে সবাইকে কাজ করার আহ্বান জানান লোকমান হোসেন মৃধা। তিনি বলেন, আমার বড়ভাই এলজিআরডি মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি দেশের সব জায়গায়ই উন্নয়ন হোক- এটা চান। যাতে আগামীতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা আবার ক্ষমতায় এসে দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ ও মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করতে পারেন। ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পৌঁছাতে পারেন। আগামী নির্বাচনে যাতে আওয়ামী লীগ বিজয় লাভ করতে পারে- সেই লক্ষ্যে আপনারা সবাই কাজ করে যাবেন।

নারীদের উদ্দেশ্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বনির্ভর দেশ গড়তে নারীর উন্নয়ন, ক্ষমতায়ন, নারীর প্রতি সহিংসতা দূর করে নারীর অবস্থান ও পরিস্থিতির উন্নতি এবং অর্থনীতিতে নারীর যাত্রা ও উন্নয়ন ঘটাতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

সভাপতি আরিফুর রহমান দোলন এলাকার বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বলেন, শুধু এই দাবিটাই  আপনাদের কাছে করব- বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা যেন বারবার নির্বাচিত হতে পারেন। এই ব্যাপারে আপনারা ভূমিকা রাখবেন। তাহলে আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী, মধুখালীর উন্নয়ন করা সম্ভব হবে।

সমাজসেবক আরিফুর রহমান বলেন, মুক্তিযোদ্ধার সপক্ষের শক্তি এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি ক্ষমতায় থাকেন- এ অঞ্চলের উন্নয়ন আরো বেশি করে করা সম্ভব হবে। এই কারণে আপনাদের সহযোগিতা ও সমর্থন প্রয়োজন।

তিনি বলেন, আলফাডাঙ্গা শেখ হাসিনার উপজেলা- যে কথা তিনি নিজের মুখেই বলে থাকেন। এখানকার মানুষ আওয়ামী লীগকে বারবার ভোট দিয়ে- সেই আস্থা, বিশ্বাস  অর্জন করেছে। তাই এ আলফাডাঙ্গা আর পিছিয়ে থাকতে পারে না। পিছিয়ে যে থাকবে না তার একটি প্রমাণ- আপনারা অনেকটাই পেয়ে গেছেন। কামারগ্রাম একাডেমির জায়গায় ৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার স্থাপিত হতে যাচ্ছে। যেখানে শিক্ষা নিয়ে দক্ষতা অর্জনের পর শিক্ষার্থীরা নিজেরাই কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারবেন।

ঢাকাটাইমস সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনা যদি আলফাডাঙ্গাকে পছন্দ না করতেন, এলজিআরডি মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের যদি ব্যক্তিগত হস্তক্ষেপ না থাকত- তাহলে এটা করা সম্ভব ছিল না। এরকম নানা ধরনের প্রকল্প আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারীতে আসছে। এ অঞ্চলের অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য একটি বিশেষ প্রকল্প হচ্ছে। এ ধরনের প্রকল্প পাস করাতে হলে একনেকে পাস করাতে হয়, সেই একনেকের সভাপতি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একনেকে কিন্তু অনেক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী থাকেন। তারপরে সেটি পাস হয়। তাহলে বুঝতে হবে যে, নেত্রী আমাদেরকে কতটা পছন্দ করেন। আমরা যেন তার সেই পছন্দের মূল্য দিতে পারি।

আরিফুর রহমান বলেন, মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি, জঙ্গিবাদকে যারা পৃষ্ঠপোষকতা করে- তারা নেত্রীকে ক্ষমতা থেকে হঁটাতে চায়। তারা যেন সেটি না করতে না পারে, জঙ্গিবাদ যেন মাথা চড়া দিয়ে উঠতে না পারে- তা প্রতিহত করতে হবে।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা নিয়মিত শরীর চর্চা করলে তাদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটবে। এ ব্যাপারে অভিভাবকদের যত্ন নিতে হবে। শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ জাগিয়ে তুলতে হবে। এদের মধ্য থেকে একদিন প্রতিভাবানরা বেরিয়ে আসবে। সুস্থ বিনোদনের অভাবে শিক্ষার্থীরা বিপথগামী হয়ে পড়ে। তারা মাদকাসক্ত হয়। তাই তাদের সঠিক পথে রাখতে খেলাধুলার চর্চা বাড়াতে হবে।

কলেজের সহকারী অধ্যাপক আবুল কাশেম ও এ কে এম আরিফুজ্জামানের উপস্থাপনায় আরও বক্তব্য দেন- বিশেষ অতিথি আলফাডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এম জালাল উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম আকরাম হোসেন, অনুষ্ঠানের আহবায়ক ফরিদপুর জেলা পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড সদস্য শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, কলেজের অধ্যক্ষ মোর শেদুর রহমান তাজ।

সোমবার শেষ হবে দুই দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠান। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» আলফাডাঙ্গায় ভাঙনে বাড়ি-ঘর, ফসলি জমি মধুমতিতে

» অনন্য উচ্চতায় শেখ হাসিনা

» সংবাদ প্রকাশের জের মাদককারবারির হামলায় আহত সাংবাদিক মুজাহিদ

» আলফাডাঙ্গায় জুয়া খেলার প্রতিবাদ করায় ইউপি সদস্যকে হত্যার হুমকি

» আলফাডাঙ্গায় উন্নয়ন মেলা শুরু

» তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম ও তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদকে বনপা’র অভিনন্দন

» আলফাডাঙ্গায় গরীব-দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

» আলফাডাঙ্গায় বিজয় দিবস উদযাপন

» ছাত্রলীগে ঠিকাদার, কাশিয়ানিতে মহাসড়ক অবরোধ

» আলফাডাঙ্গা পৌরসভা ও তিন ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা বাছাই সম্পন্ন

» “নেশা মুক্ত সমাজ গড়ি এসো সবাই খেলা ধুলা করি” BWFA

» গোপালপুর ইউপি নির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থী ইনামুলের মনোনয়ন দাখিল

» “স্মৃতিচারণ”

» গোপালপুর ইউপিতে নৌকার মাঝি হলেন ইনামুল হাসান

» আলফাডাঙ্গা পৌরসভা ও তিন ইউনিয়নে আ.লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত


সম্পাদক : মুজাহিদুল ইসলাম নাঈম
প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন
সম্পাদকীয় কার্যালয় : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
01738106357,01715473190,01985082254
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।

রাত ১:৩৮, ,

আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের কামারগ্রামের আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজে দুই দিনব্যাপী বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়েছে।

রবিবার সকালে জাতীয় সঙ্গীতের সুরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পতাকা উত্তোলন, শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে এবং  মশাল জ্বালিয়ে এ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়। পরে  প্যারেড পরিবেশনের মাধ্যমে অতিথিদের সালাম নিবেদন করা হয়।

ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন  ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মৃধা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজের সভাপতি, অনলাইন নিউজপোর্টাল ‘ঢাকাটাইমস’ ও সাপ্তাহিক ‘এই সময়’ সম্পাদক এবং কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সমাজসেবক আরিফুর রহমান দোলন।

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ যেন আবার ক্ষমতায় আসতে পারে, সে লক্ষ্যে সবাইকে কাজ করার আহ্বান জানান লোকমান হোসেন মৃধা। তিনি বলেন, আমার বড়ভাই এলজিআরডি মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি দেশের সব জায়গায়ই উন্নয়ন হোক- এটা চান। যাতে আগামীতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনা আবার ক্ষমতায় এসে দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ ও মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করতে পারেন। ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পৌঁছাতে পারেন। আগামী নির্বাচনে যাতে আওয়ামী লীগ বিজয় লাভ করতে পারে- সেই লক্ষ্যে আপনারা সবাই কাজ করে যাবেন।

নারীদের উদ্দেশ্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বনির্ভর দেশ গড়তে নারীর উন্নয়ন, ক্ষমতায়ন, নারীর প্রতি সহিংসতা দূর করে নারীর অবস্থান ও পরিস্থিতির উন্নতি এবং অর্থনীতিতে নারীর যাত্রা ও উন্নয়ন ঘটাতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

সভাপতি আরিফুর রহমান দোলন এলাকার বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বলেন, শুধু এই দাবিটাই  আপনাদের কাছে করব- বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা যেন বারবার নির্বাচিত হতে পারেন। এই ব্যাপারে আপনারা ভূমিকা রাখবেন। তাহলে আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী, মধুখালীর উন্নয়ন করা সম্ভব হবে।

সমাজসেবক আরিফুর রহমান বলেন, মুক্তিযোদ্ধার সপক্ষের শক্তি এবং জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি ক্ষমতায় থাকেন- এ অঞ্চলের উন্নয়ন আরো বেশি করে করা সম্ভব হবে। এই কারণে আপনাদের সহযোগিতা ও সমর্থন প্রয়োজন।

তিনি বলেন, আলফাডাঙ্গা শেখ হাসিনার উপজেলা- যে কথা তিনি নিজের মুখেই বলে থাকেন। এখানকার মানুষ আওয়ামী লীগকে বারবার ভোট দিয়ে- সেই আস্থা, বিশ্বাস  অর্জন করেছে। তাই এ আলফাডাঙ্গা আর পিছিয়ে থাকতে পারে না। পিছিয়ে যে থাকবে না তার একটি প্রমাণ- আপনারা অনেকটাই পেয়ে গেছেন। কামারগ্রাম একাডেমির জায়গায় ৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার স্থাপিত হতে যাচ্ছে। যেখানে শিক্ষা নিয়ে দক্ষতা অর্জনের পর শিক্ষার্থীরা নিজেরাই কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারবেন।

ঢাকাটাইমস সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনা যদি আলফাডাঙ্গাকে পছন্দ না করতেন, এলজিআরডি মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের যদি ব্যক্তিগত হস্তক্ষেপ না থাকত- তাহলে এটা করা সম্ভব ছিল না। এরকম নানা ধরনের প্রকল্প আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারীতে আসছে। এ অঞ্চলের অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য একটি বিশেষ প্রকল্প হচ্ছে। এ ধরনের প্রকল্প পাস করাতে হলে একনেকে পাস করাতে হয়, সেই একনেকের সভাপতি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একনেকে কিন্তু অনেক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী থাকেন। তারপরে সেটি পাস হয়। তাহলে বুঝতে হবে যে, নেত্রী আমাদেরকে কতটা পছন্দ করেন। আমরা যেন তার সেই পছন্দের মূল্য দিতে পারি।

আরিফুর রহমান বলেন, মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি, জঙ্গিবাদকে যারা পৃষ্ঠপোষকতা করে- তারা নেত্রীকে ক্ষমতা থেকে হঁটাতে চায়। তারা যেন সেটি না করতে না পারে, জঙ্গিবাদ যেন মাথা চড়া দিয়ে উঠতে না পারে- তা প্রতিহত করতে হবে।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা নিয়মিত শরীর চর্চা করলে তাদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটবে। এ ব্যাপারে অভিভাবকদের যত্ন নিতে হবে। শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ জাগিয়ে তুলতে হবে। এদের মধ্য থেকে একদিন প্রতিভাবানরা বেরিয়ে আসবে। সুস্থ বিনোদনের অভাবে শিক্ষার্থীরা বিপথগামী হয়ে পড়ে। তারা মাদকাসক্ত হয়। তাই তাদের সঠিক পথে রাখতে খেলাধুলার চর্চা বাড়াতে হবে।

কলেজের সহকারী অধ্যাপক আবুল কাশেম ও এ কে এম আরিফুজ্জামানের উপস্থাপনায় আরও বক্তব্য দেন- বিশেষ অতিথি আলফাডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এম জালাল উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম আকরাম হোসেন, অনুষ্ঠানের আহবায়ক ফরিদপুর জেলা পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড সদস্য শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, কলেজের অধ্যক্ষ মোর শেদুর রহমান তাজ।

সোমবার শেষ হবে দুই দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠান। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ




সম্পাদক : মুজাহিদুল ইসলাম নাঈম
প্রকাশক : মাহির শাহরিয়ার শিশির
বার্তা সম্পাদক: সৈকত মাহমুদ
নির্বাহী সম্পাদক : মনেম শাহরিয়ার শাওন
সম্পাদকীয় কার্যালয় : সুইট :৩০০৯, লেভেল : ০৩, হাজি
আসরাফ শপিং কমপ্লেক্স, হেমায়েতপুর, সাভার, ঢাকা
01738106357,01715473190,01985082254
fb.com/bartakantho | info@bartakantho.com

Design & Devaloped BY The Creation IT BD Limited | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © বার্তাকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।